শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
Logo বৈশাখ মাসের ধানের নতুন গন্ধ Logo ফোঁটা জল প্রায় 90 দিন লাগে। Logo ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসের পাশাপাশি আজ সুন্দরবন দিবস Logo রংপুরে স্নেহা জেনারেল হাসপাতালে দোয়া মাহফিল ও শুভ উদ্বোধন।  Logo নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এর ছেলের নামে মিথ্যা অভিযোগ ও মামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন Logo নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোঃ দাউদ হোসেন এর উদ্যোগে গণ টিকা উদ্বোধন  Logo সীমান্ত এলাকায় শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন লাভলী Logo ভোরের চেতনা পত্রিকার সম্পাদক আগমন উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জেলা প্রতিনিধি মিরাজুল শেখ Logo বাগেরহাটে সন্তানের সামনে মাকে ধর্ষণ,ধর্ষককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত Logo বাগেরহাট পৌরসভায় শুরু হয়েছে নিবন্ধন ছাড়াই টিকা দান কর্মসূচী

বাগেরহাটের চিতলমারীতে সার ডিলারের প্রতারণায় টমেটো চাষীর ১ হাজার গাছ নষ্ট

নিউজ ডেস্ব / ৩৬০ বার পঠিত
আপডেট : রবিবার, ৩ অক্টোবর, ২০২১, ৮:৫০ অপরাহ্ণ

মোঃ মিরাজুল শেখ,স্টাফ রিপোর্টার

বাগেরহাটের চিতলমারীতে সার ডিলারের প্রতারণায় নিন্মমানের কৃষি পণ্য ব্যবহার করে নিত্যানন্দ কির্ত্তুনীয়া নামের এক টমেটোর চাষীর এক হাজার গাছ নষ্ট হয়ে গেছে। বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগী চাষী উপজেলা কৃষি অফিসে অভিযোগ দায়ের করেছেন। লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার চরবানিয়ারী উত্তরপাড়া গ্রামের সারের ডিলার অনাদী বালা প্রতারণার মাধ্যমে স্থানীয় টমেটো চাষীর নিটক নিন্মমানের টমেটোর শিকড় বর্ধক অণুখাদ্য বিক্রয় করে। ডিলারের কথায় নিন্মমানের ওই অণুখাদ্য টমেটো গাছে প্রয়োগ করার এক-দুই দিনের মধ্যে গাছের চারা মরতে শুরু করে। কয়েকদিনের মধ্যে প্রায় ১ হাজার টমেটো গাছ মারা যায়। এতে ওই চাষীর প্রায় ৩-৪ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত চাষী নিত্যানন্দ কির্ত্তুনীয়া বলেন, এ বছর আমি আগাম টমেটো চাষ করি। আগাম চাষ করার ফলে প্রায় এক হাজার টমেটো গাছে ফুল ধরতে শুরু করে। এ সময় স্থানীয় সারের ডিলার অনাদী বালা আমাকে গাছে অণুখাদ্য ব্যবহারের জন্য পরামর্শ দেয়। তার পরামর্শ অনুযায়ী তার কাছ থেকে ওই অনুখাদ্য ক্রয়ে করে গাছে প্রয়োগ করার ফলে আমার প্রায় ১ হাজার টমেটো গাছ মারা যায়। এতে প্রায় ৩-৪ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয় বলে তিনি জানান। বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে উপজেলা কৃষি অফিসে লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে কৃষি অফিসের অলোক বাবু আমার কাছে ৫ হাজার টাকা দাবী করেণ। তার দাবীকৃত টাকা না দেওয়ায় সে আমার ক্ষতিগ্রস্ত টমেটো ক্ষেত দেখতে পর্যন্ত আসেনি।

এ ব্যাপারে সারের ডিলার অনাদী বলেন, আমি সাংবাদিকদের কোন তথ্য দিতে পারবনা । আমি যা বলার কৃষি অফিসারকে বলে এসেছি।

এ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রাজিয়া সুলতানা জানান, এ বিষয়ে ক্ষতিগ্রস্ত টমেটো চাষী নিত্যানন্দ কির্ত্তুনীয়ার একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD